দক্ষিন কোরিয়ার ইন্টারনেট পৃথিবীর সবথেকে দ্রুতগতি সম্পন্ন-

দক্ষিন কোরিয়ার ইন্টারনেট পৃথিবীর সবথেকে দ্রুতগতি

0

- Advertisements -

বর্তমান যুগ ইন্টারনেটের যুগ। পৃথিবীর প্রতিটি দেশেই চায় নিজ দেশকে অন্যদেশ থেকে উন্নত করা। দুনিয়াটা প্রতিযোগিতার যায়গা। যে যত বেশি শ্রম করবে সে তত বেশি উন্নত হবে। বর্তমানে উন্নতির চরম শিখরে পৌঁছানোর উপায় হচ্ছে বিজ্ঞানসম্মত উন্নতি। যে জাতি যত বেশি বৈজ্ঞানিকভাবে উন্নতি করছে সে জাতি তত বেশি উন্নত।

আর উন্নতি করতে হলে অবশ্যই ইন্টারনেট সেবার দিক্র জোরদার করতে হবে। এক্ষেত্রে ইন্টারনেট সেবার দিক দিয়ে সব থেকে এগিয়ে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। দক্ষিণ কোরিয়ায় পৃথিবীর সবথেকে দ্রুত গতিসম্পন্ন ইন্টারনেট ব্যবস্থা প্রচলিত। আধুনিক সরঞ্জাম এর অধিকাংশই রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ায়।

- Advertisements -

তারা ইন্টারনেট ব্যবস্থাকে এতটা জোর দিয়েছেন যে তাদের এই দুনিয়ার মধ্যে সবথেকে দ্রুত গতিসম্পন্ন ইন্টারনেট ব্যবস্থা এখন দক্ষিণ কোরিয়ার। অনুন্নত থেকে উন্নত শিখরে নিয়ে যাওয়া দক্ষিণ কোরিয়ার জীবনাচরণ দেখে তাদের এমনটি মনে হওয়া খুবই স্বাভাবিক।

কারণ সেখানকার প্রতিটি মানুষের হাতে হাতে মোবাইল ফোন। এই ছোট যন্ত্রটি দিয়েই তারা সুপারমার্কেটে কেনাকাটার পর বিল মেটানো থেকে শুরু করে দৈনন্দিন জীবনের প্রায় সব কাজ করে ফেলতে পারে। এই দেশে রয়েছে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট,যা পৃথিবীর অন্য আর সব দেশের চেয়ে বেশি দ্রুত গতিসম্পন্ন।

আরও দেখুন
1 of 3

- Advertisements -

এই ইন্টারনেটের বদৌলতে তারা মুহূর্তের মধ্যে বিশ্বের প্রায় যেকোনো প্রান্তের (উত্তর কোরিয়া বাদে) মানুষের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারে, যেকোনো তথ্য জেনে নিতে পারে। এই বিষয়গুলো দেখে উত্তর কোরিয়া থেকে পালিয়ে আসা মানুষগুলো চমৎকৃত ও অভিভূত হয়। নিজ দেশে তো তারা কোনোদিন ইন্টারনেট চালানোর সুযোগ পায়নি।

বিশ্বের অন্য কোনো দেশের মানুষের সাথে কথা বলার তো প্রশ্নই আসে না। এসব অধিকার সংরক্ষিত কেবল পিয়ংইয়ং শহরের নির্দিষ্ট কিছু অভিজাত শ্রেণীর নাগরিকের জন্য।

দক্ষিণ কোরিয়ায় আগমনের পর প্রথম কয়েক মাস তাই তাদের কাটে বিশেষায়িত সরকারি বিদ্যালয়গুলোতে, যেখানে তাদেরকে দেয়া হয় একবিংশ শতকের জীবনধারার সাথে খাপ খাইয়ে নেবার শিক্ষা।

কথায় আছে, তুমি যে খাবারের স্বাদ কোনোদিন চেখে দেখোনি, সে খাবারের জন্য তোমার জিভ কখনো লকলক করবে না। উত্তর কোরিয়ার সাধারণ মানুষের কাছে ইন্টারনেটও ঠিক সেরকমই একটি খাবার, যেটির প্রতি তাদের মনে কখনো আকাঙ্ক্ষা সৃষ্টি হয় না। বরং তারা সন্তুষ্ট রয়েছে বিশেষ এক ধরনের ইন্টারনাল ইন্টারনেট ব্যবস্থা নিয়েই।

- Advertisements -

Leave A Reply

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More